ডার্ক ওয়েব: ইন্টারনেটের অন্ধকার জগৎ

গুগলে কোন কিছু লিখলেই মুহুর্তের মধ্যে হাজার হাজার তথ্য চলে আসে। কত কিছুই জানে গুগল! কিন্তু আপনি জানেন কি, সার্চ করলে গুগল থেকে বেশি রেজাল্ট পেয়ে যাবেন ডার্ক ওয়েব বা ডিপ ওয়েবে !

শুনে অবাক হবেন গুগল গোটা ইন্টারনেট দুনিয়ার মাত্র ০০০২৫% তথ্য জানে। বাকিগুলো গুগলের অজানা। তাহলে বাকি তথ্যগুলো কোথায়? হ্যাঁ বাকি তথ্যগুলো রয়েছে ডার্ক ওয়েব এবং ডিপ ওয়েবে।

ডার্ক ওয়েব কী

ডার্ক ওয়েব ইন্টারনেটের এমন একটি এলাকা যেখানে আপনি চাইলেই ঢুকতে পারবেন না।এর কারণ হচ্ছে এখানে অনেক অবৈধ কাজ হয়।

তাছাড়া ফেইসবুক বা ইউটিউবের লিঙ্কের মত হয় না এর ইউআরএল

ধরুন এমন একটা ওয়েবসাইট যার লিঙ্ক 0o&sh972twobs&todn&ui&29dg.onion যেটি কারো এক্সেস করা সম্ভব নয় যদি না কেউ লিঙ্ক শেয়ার করে।

ডার্ক ওয়েবের এ্যাড্রেসগুলো এরকম হয়ে থাকে এবং সার্চ ইন্জিনের জন্য ইনডেক্স করা না থাকায় কেউ খুজে পায়না ।

আরো পড়ুনঃ  মুখের দুর্গন্ধ দুর করুন ঘরোয়া উপায়ে

ডার্ক ওয়েবে কি হয়

ডার্ক ওয়েবে মুলত অপরাধমুলক কর্মকান্ড হয়ে থাকে। যেমন ধরুন কাউকে খুনের অর্ডার দেওয়া, কারো কিছু হ্যাক করার অর্ডার দেয়া, ড্রাগ বিক্রি করা, পর্ন, অস্ত্র কেনা বেচা ইত্যাদি ইত্যাদি।

এছাড়াও জঙ্গি এবং উগ্রপন্থীরা ফেসবুকের মত ওয়েবসাইট বানিয়ে তাতে তথ্য আদান প্রদান করে। হামলা বা নাশকতার পরিকল্পনা করে।

কীভাবে ব্যবহার করা হয়

ট্র্যাডিশন্যাল ইউআরএল টাইপ করে সাধারণ ব্রাউজার থেকে ডার্ক ওয়েবে প্রবেশ করা যায় না। এর জন্য একটি একটি স্পেশাল ওয়েব ব্রাউজার ব্যবহার করতে হয় যেটির নাম “দ্যা অনিয়ন রাউটার” বা টর ব্রাউজার।

টর ব্রাউজার এর ব্যবহারকারীকে ডার্ক ওয়েবের সাথে সংযুক্ত করিয়ে দেয় এবং কানেকশনকে বিভিন্ন সার্ভারের সাথে ক্রোস কানেক্টেড করায় এবং প্রত্যেক অংশে এনক্রিপশন ম্যাথড ব্যবহার করে ডাটাকে এনক্রিপটেড করিয়ে মূল সার্ভারের কাছে পাঠায়।

এতে করে মুল ব্যবহারকারীকে শনাক্ত করা প্রায় অসম্ভব হয়ে পড়ে।

কারা ব্যবহার করেন ও কেন

সবকিছুরই যেমন ভালো দিক রয়েছে তেমন খারাপ দিকও রয়েছে। ডার্ক ওয়েব অত্যন্ত সিকিউর হওয়ায় এর মাধ্যমে অনেক গুরুত্বপুর্ণ তথ্য ও আদান প্রদান করা হয়ে থাকে।

আরো পড়ুনঃ  ফেইসবুক থেকে ৫৩ কোটি গ্রাহকের তথ্য ফাঁস

যেমন ধরুন এক দেশের সাথে অন্য দেশের বিভিন্ন চুক্তিপত্র, কিংবা গুরুত্বপুর্ণ কোন নতির আদান প্রদান যা কিনা নরমাল ইন্টারনেট ব্যবহার করে করা নিরাপদ নয়।

অনেক ক্রিমিনাল নিউজ রিপোর্টার নিউজ কভার করতে অনেক সময় বিভিন্ন ক্রিমিন্যালের সাথে যোগাযোগ রাখতে হয় এবং তাদের মধ্যে এমন কিছু ডাটা আদান প্রদান হয়।

যেটার জন্য নরমাল ওয়েব কখনোই নিরাপদ নয়, এক্ষেত্রে ডার্ক ওয়েব তাদের জন্য অত্যন্ত সিকিউর প্লেস।